২৮ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী বিএসসি'র ৪ জাহাজ উদ্বোধন করবেন-নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী

২৮ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী বিএসসি'র ৪ জাহাজ উদ্বোধন করবেন-নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী

 নিজস্ব প্রতিবেদক
  ২০১৯-১১-২৪: ০৪:৪০ পিএম

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী মো. খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন সরকারের একটি লাভজনক প্রতিষ্ঠান। ১৯৭২ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি  জাতির জনকের হাত ধরে এ প্রতিষ্ঠান যাত্রা শুরু করে। প্রতিষ্ঠাকালে শিপিং কর্পোরেশন এর জাহাজ ছিল দুইটি। আগামী ২৮ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্স এর মাধ্যমে আরো ৪ টি জাহাজের উদ্বোধন করবেন। বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন। এ প্রতিষ্ঠানের স্বচ্ছতা আছে বলেই এর সাফল্য নিশ্চিত বলে মন্তব্য করেন নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী মো. খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।
রবিবার (২৪ নভেম্বর) বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন আয়োজিত ৪২তম বার্ষিক সাধারণ সভায় সভাপতির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন। 
চট্টগ্রাম বোট ক্লাবে এ সভায় বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক কমোডর সাব্বির মাহমুদ প্রধান অতিথি ছিলেন। এ সময় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আ হ ম আহসান, বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন এর অংশিজনগণ ও উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। 
বঙ্গবন্ধু কন্যা ক্ষমতায় থাকলে বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন পথ হারাবে না উলে­খ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন,  শিপিং কর্পোরেশন এর জাহাজ ক্রয়ের জন্য সরকার ১ হাজার ৮০০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে। এ অর্থ দিয়ে শিপিং করপোরেশন ৪ টি জাহাজ ক্রয় করেছে। আগামী অর্থ বছরে আরো ৬ টি জাহাজ ক্রয়ের জন্য অর্থ বরাদ্দ দেওয়ার পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে।  
প্রতিমন্ত্রী বলেন, গত ২০১৮- ২০১৯অর্থ বছরে বিএসসির পরিচালনা আয় ছিল ১৮৫.০৯ কোটি টাকা এবং অন্যান্য খাত থেকে আয় হয়েছে ৩৭.৮৯ কোটি টাকা। সর্বমোট আয় হয়েছে ২২২.৯৮ কোটি টাকা। প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা ব্যয় ছিল ১২৯.১৫ কোটি টাকা ও প্রশাসনিক রক্ষণাবেক্ষণ খাতে ব্যয় হয়েছে ৪৫.৯৩ কোটি, মোট ব্যয় হয়েছে ১৭৫.০৮ কোটি টাকা । আর্থিক বিশ্লেষণে আলোচ্য অর্থ বছরে কর সমন্বয়ের পর সংস্থার নীট মুনাফা হয়েছে ৫৫.২৩ কোটি টাকা।  অংশীজনদের উদ্দেশ্যে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন এর যে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা রয়েছে তাতে কোনো সন্দেহ নেই। বাংলাদেশে এমন কোন প্রতিষ্ঠান নেই যে তাদের আয় ব্যয়ের হিসাব অংশীজনদের কাছে এভাবে উপস্থাপন করেন। 
এসময় অংশীজনরা তাদের ডেবিডেন্ট এর হার ১০ থেকে বাড়িয়ে ১২ হার এবং বোর্ড সভায় অংশীজনদের মধ্যে যারা শেয়ার বাজার বুঝেন এমন অংশীজনদের অন্তর্ভুক্ত করাসহ নানা ধরণের দাবি পেশ  করেন। 
খবর পিআইডি'র 


সাবস্ক্রাইব ইউটিউব চ্যানেল