চট্টগ্রাম থেকে দক্ষিণ-পূর্বমুখি রুটে ফ্লাইট চালুর দাবী এবার

চট্টগ্রাম থেকে দক্ষিণ-পূর্বমুখি রুটে ফ্লাইট চালুর দাবী এবার

 নিজস্ব প্রতিবেদক
  ২০১৯-১১-২৫: ০৯:০০ পিএম

চট্টগ্রাম থেকে দক্ষিণ-পূর্বমুখি রুটে ফ্লাইট চালুর দাবী জানিয়েছে এবার চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন চেম্বার। মেট্রোপলিটন চেম্বার প্রেসিডেন্ট খলিলুর রহমান সোমবার (২৫ নভেম্বর) বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বরাবরে একটি চিঠি দিয়েছেন। এতে সিঙ্গাপুর-ব্যাংকক-হংকং-মালয়েশিয়া-চায়না-জাপান-কোরিয়া ও ভারতের চেন্নাই-দিল্লি রুটে ফ্লাইট চালু করার আহ্বান জানানো হয় । 
চিঠিতে বলা হয়, দেশের রেলওয়ে ও নৌ-পরিবহনে বিআইডব্লিউটিএ, সড়ক পরিবহনে বিআরটিসি, বিদ্যুৎ বিভাগ, ওয়াসা, টেলিফোন সংস্থা ইত্যাদির মতো বিমান পরিবহন সংস্থার সেবা পাওয়া দেশের সকল বিভাগের জনগণের অধিকার রয়েছে।
বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রামকে দেশের অর্থনীতির প্রাণকেন্দ্র উল্লেখ করে চিঠিতে বলা হয় যে, এখানে সরকারী বেসরকারী বড় কয়েকটি ইপিজেড ও ইকোনমিক জোন গড়ে উঠছে। নির্মাণাধীন অবস্থায় রয়েছে মীরসরাই ও আনোয়ারা ইকোনমিক জোন, দেশের প্রথম বঙ্গবন্ধু টানেল নির্মিত হচ্ছে চট্টগ্রামে। টানেলের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হলে এ অঞ্চলে শিল্প এলাকার সংখ্যা আরও বৃদ্ধি পাবে। এছাড়া ইকোনমিক জোন এবং ইপিজেডগুলোর সকল কর্মকাণ্ডের সাথে চীন, সিঙ্গাপুর, ব্যাংকক, হংকং অর্থাৎ দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের সাথে যোগাযোগের প্রয়োজনীয়তা প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। অথচ চট্টগ্রাম থেকে দক্ষিণ-পূর্ব দিকের যোগাযোগের ক্ষেত্রে বিমান পরিবহনের কোনো ব্যবস্থা নেই বলে উল্লেখ করে বলা হয়, চট্টগ্রাম থেকে সরাসরি সিঙ্গাপুর, ব্যাংকক, চায়না, মালয়েশিয়ায় যাওয়ার সুযোগ বা ওদিক থেকে সরাসরি চট্টগ্রামে আসার সুযোগ থাকলে বাংলাদেশের একমাত্র বাণিজ্যিক রাজধানী বন্দরনগরী চট্টগ্রাম তথা ইকোনমিক জোন সমূহে নতুন বিদেশি বিনিয়োগের প্রবাহ বেড়ে যাওয়ার পাশাপাশি শিল্পায়ন, কর্মসংস্থান ও রপ্তানি কার্যক্রমে প্রত্যাশিত গতিশীলতা তৈরি হবে।
মেট্রোপলিটন চেম্বার প্রেসিডেন্ট খলিলুর রহমান চিঠিতে উল্লেখ করেন যে, জনগণ রাষ্ট্রীয় সংস্থাগুলির সেবা পাবার অধিকার রাখে। যেমন, ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথে কোনো মাসে ক্ষতি হলেও ঢাকা- চট্টগ্রাম রেল পরিবহন বন্ধ করা যাবে না। অনুরূপ বিবেচনায় চট্টগ্রাম থেকে দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার পরিবহনে বাংলাদেশ বিমানের লাভ কম বেশি হলেও দেশের শিল্পায়ন তথা কর্মসংস্থান ও জনস্বার্থে চট্টগ্রাম থেকে বাংলাদেশ বিমানের পূর্বমূখী রুটে অতি সত্ত্বর ফ্লাইট চালু করা অত্যাবশ্যক।
চিঠিতে সপ্তাহে অন্তত তিনদিন ব্যাংকক-সিঙ্গাপুর-মালয়েশিয়া-হংকং-চায়না-জাপান-কোরিয়া রুটে বিমান চালুর আহবান জানানো হয়। চট্টগ্রাম থেকে বহু লোক চিকিৎসা ও ব্যবসায়িক কারণে ভারতের চেন্নাই ও দিল্লি যাতায়াত করছে। তাই চট্টগ্রাম-কলকাতা রুটের পাশাপাশি সপ্তাহে আরও ২ দিন চট্টগ্রাম- চেন্নাই -দিল্লি রুটে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইট চালু করার অনুরোধ জানান চট্টগ্রামের শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়ী খলিলুর রহমান।
উল্লেখ, এর আগে চট্টগ্রাম চেম্বারও একই দাবী জানিয়ে বিমান প্রতিমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছিলেন। 


সাবস্ক্রাইব ইউটিউব চ্যানেল