চট্টগ্রামেও ছিলেন কক্সবাজারের করোনাক্রান্ত নারী!

চট্টগ্রামেও ছিলেন কক্সবাজারের করোনাক্রান্ত নারী!

 নিজস্ব প্রতিবেদক
  ২০২০-০৩-২৪: ০৬:৪৪ পিএম

কক্সবাজারে প্রথম করোনা আক্রান্ত ৭৫ বয়সী মহিলা বিদেশ থেকে থেকে ফিরেন গত ১৩ মার্চ। এর পর ওঠেন চট্টগ্রামের চান্দগাঁওয়ে ছেলের বাসায়। কক্সবাজারের স্থানীয় প্রশাসন এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে। 

সূত্র মতে, কক্সবাজার জেলার চকরিয়ার ৭৫ বছর বয়সী মহিলা ১৩ মার্চ সৌদি আরব থেকে ফেরার পর প্রথমে চট্টগ্রাম শহরের নিউ চান্দগাঁও আবাসিক এলাকায় ছোট ছেলের বাসায় অবস্থান করেন। পরদিন ১৪ মার্চ খুটাখালীর নিজবাড়ীতে যান। কিন্তু ১৭ মার্চ তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে নেয়া হয় কক্সবাজার শহরে । ওইদিন তিনি শহরের টেকপাড়ায় বড় ছেলে বাসায় ওঠেন। এবং জ্বর, কাশি, গলা ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে ওই রোগীকে ১৮ মার্চ কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তার অসুস্থতার ধরন দেখে নমুনা পরীক্ষার জন্য ২২ মার্চ পাঠান রাজধানীর রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) এ।  
মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) ওই মহিলার করোনাভাইরাসের পজেটিভ রিপোর্ট পাওয়া যায়।

মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) আইইডিসিআর থেকে তার শরীরে করোনার বিষয়ে পজেটিভ রিপোর্ট আসে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন, কক্সবাজার সদর হাসপাতালে তত্বাবধায়ক ডা. মহিউদ্দিন। তিনি জানান, গত ১৮ মার্চ মোসলিমা খাতুন সদর হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর যেসব ডাক্তার-নার্স তাকে চিকিৎসা দিয়েছেন, তাদের সবাইকে কোয়েরেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে। ডা. মহিউদ্দিন নিজেও কোয়েরেন্টাইনে রয়েছেন বলে জানান। আক্রান্ত নারীর সংস্পর্শে আসা সবাইকে কোয়েরেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে। 

কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন জানান, জেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিন রোগীর করোনা শনাক্তে ঢাকাস্থ আইইডিসিআরে নমুনা পাঠানো হয়। সেখান থেকে একজনের পজিটিভ ও দুজনের নেগেটিভ রিপোর্ট পাওয়া গেছে। তিনি বলেন, শনাক্ত হওয়া রোগীকে বিশেষ অ্যাম্বুলেন্সে চট্টগ্রাম পাঠানো হয়েছে। এছাড়াও তিন শতাধিক ব্যক্তিকে কোয়ারেইন্টানে রাখা হয়েছে।

তবে চকরিয়ার খুটাখালীতে ওই মহিলার সংস্পর্শে আসা আত্মীয়স্বজনও আক্রান্ত হবার আশংকা করা হচ্ছে। খুটাখালীতে সংস্পর্শে আসা আরো কয়েকজনের শরীরে করোনার লক্ষণ দেখা দেয়ার কথা জানিয়েছে এলাকাবাসী। তবে এখনও কারো বাড়ি লকডাউন করা হয়নি।

 
 


সাবস্ক্রাইব ইউটিউব চ্যানেল