ডিম ছেড়েছে মা-মাছ, হালদায় উৎসব

ডিম ছেড়েছে মা-মাছ, হালদায় উৎসব

 নিজস্ব প্রতিবেদক
  ২০২০-০৫-২২: ১২:৩১ পিএম

দেশে মিঠা পানির একমাত্র প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র হালদা নদীতে অবশেষে ডিম ছেড়েছে মা-মাছ। বৃহস্পতিবার রাতে মা মাছ নমুনা ডিম দিলেও শুক্রবার (২২ মে) সকাল থেকে পুরোদমে ডিম ছেড়েছে মা-মাছ। এখন প্রায় ৩শতাধিক ডিম সংগ্রহকারী নৌকা দিয়ে নদী থেকে ডিম সংগ্রহ করছেন বলে নিশ্চিত করেন হালদা গবেষক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. মঞ্জুরুল কিবরিয়া।

আম্ফানের পর বৃষ্টি শুরু হলে বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার হালদা নদীর জোয়ারের পানি বাড়তে থাকে, একই সাথে নামে উজানের ঢল। এতে রাতের দিকে হালদা নদীতে মা-মাছ নমুনা ছাড়ে। শুক্রবার সকালের দিকে জোয়ার হলে মা-মাছ পুরো দমে ডিম ছাড়তে শুরু করে। 
ডিম ছাড়ার খবর পেয়ে সংগ্রহকারীরা নৌকা, জালসহ ডিম ধরার সরঞ্জাম নিয়ে হালদায় নেমে পড়ে বলে জানিয়েছেন আইডিএফ’র জুনিয়র মৎস্য মো: রাশেদ। তিনি জানান, হালদায় এখন ডিম সংগ্রহের উৎসব চলছে।

হালদা গবেষক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. মঞ্জুরুল কিবরিয়া জানান, মুষলধারে বৃষ্টি ও মেঘের গর্জন এবং পাহাড়ি ঢল বা অমবশ্যা ও পূর্ণিমার তিথিতে হালদায় মা-মাছ ডিম ছাড়ে। কিন্তু এবার ব্যতিক্রম পরিস্থিতিতে ডিম ছাড়লো হালদার মা-মাছ। ডিম ছাড়ার সকালে নদীর বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে সংগ্রহকারীরা ডিম সংগ্রহ করতে দেখা যায়।

মূলত হালদার পশ্চিম গহিরা অংকুরী ঘোনা, বিনাজুরী, কাগতিয়ার আজিমের ঘাট, খলিফার ঘোনা, সোনাইর মুখ, আবুরখীল, খলিফার ঘোনা, সত্তারঘাট, দক্ষিণ গহিরা, মোবারকখীল, মগদাই, মদুনাঘাট, উরকিচর এবং হাটহাজারী গড়দুয়ারা, নাপিতের ঘাট, সিপাহির ঘাট, আমতুয়া, মার্দাশা ইত্যাদি এলাকায় ডিম পাওয়া যায় বেশি।

এ ব্যাপারে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রুহুল আমিন বলেন, মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র হালদা নদীতে মা-মাছ নমুনা ডিম দেয় বৃহস্পতিবার। শুক্রবার সকাল থেকে পুরোদমে ডিম ছাড়ে কার্প জাতীয় মা-মাছ। যা হালদা পাড়ের ডিমসংগ্রহকারী বা সংশ্লিদেরন জন্য একটা সুখের খবর। যে মুহূর্তটার জন্য হালদা পাড়ের মানুষজন অপেক্ষায় থাকেন।


সাবস্ক্রাইব ইউটিউব চ্যানেল