হাটহাজারী মাদ্রাসায় ৪ শিক্ষককে পুন:নিয়োগ, ২ শিক্ষকের অব্যাহতি

হাটহাজারী মাদ্রাসায় ৪ শিক্ষককে পুন:নিয়োগ, ২ শিক্ষকের অব্যাহতি

 নিজস্ব প্রতিবেদক
  ২০২০-০৯-২৩: ০৪:৫২ পিএম

ছাত্র আন্দোলনের ফসল হিসাবে হাটহাজারী দারুল উলূম মইনুল ইসলাম মাদ্রাসার চিত্র অনেক কিছুই পাল্টে গেছে। নতুন করে মাদ্রাসায় দুই শিক্ষককে অব্যাহতি ও চারজনকে পুনঃনিয়োগ দেয়া হয়েছে।

মজলিসে শুরায় যোগ হয়েছে আরো ৬ জন সিনিয়র মুহাদ্দিস। পরিবর্তন এসেছে কিতাব বণ্টনেও। সব মিলিয়ে নতুনভাবে পথচলা শুরু করেছে দেশের বৃহত্তর কওমী আঁতুড়ঘর খ্যাত হাটহাজারী মাদ্রাসা।

মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাতে মঙ্গলবার রাতে মাদ্রাসার মজলিসে এদারী (পরিচালনা কমিটি) ও মজলিসে এলমি (শিক্ষা পরিচালনা কমিটি) শুরা কমিটির গৃহীত পূর্ব ঘোষণা মোতাবেক এই সিদ্ধান্ত নেয়। এটি আন্দোলনকারী ছাত্রদের পাঁচ দাবির একটি। অব্যাহতি পাওয়া দুই শিক্ষক হলেন- মাওলানা মোহাম্মদ উসমান ও মাওলানা তকি উদ্দিন আজিজ। মাদ্রাসার প্রয়াত মহাপরিচালক আল্লামা শাহ আহমদ শফী থাকাকালীন এ দুজনকে নিয়োগ দেয়া হয়েছিল। পুনর্বহাল হওয়া চার শিক্ষক হলেন- মাওলানা আনোয়ার শাহ, মাওলানা সাঈদ আহমদ, মাওলানা মোহাম্মদ হাসান ও মাওলানা মনসুর। আহমদ শফী থাকাকালীন তাঁদেরকে মাদ্রাসা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছিল। মাদ্রাসা থেকে মঙ্গলবার প্রাপ্ত তথ্যে এ খবর জানা গেছে।

তবে আর কাউকে পুন:নিয়োগ দেয়া হবে কিনা, বিগত কত বছরের অব্যাহতি পাওয়া শিক্ষকদের পুন:নিয়োগ দেয়ার পরিকল্পনা বা সুযোগ আছে সেটা কেউ পরিষ্কার করছে না।

পাঁচ দফা দাবিতে ছাত্রদের বিক্ষোভের মুখে গত বৃহস্পতিবার রাতে মহাপরিচালকের দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করেন আল্লামা আহমদ শফী। একদিন পর মারা যান তিনি। একই সঙ্গে তাঁর ছেলে আনাস মাদানীকে মাদ্রাসা থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছিল। শুরা কমিটির সিদ্ধান্তের পর বর্তমানে মাদ্রাসার সার্বিক পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসছে বলে জানা গেছে।
 


নিউজটি শেয়ার করুন

সাবস্ক্রাইব ইউটিউব চ্যানেল