৬০ টাকার নিচে সবজি নেই, আলু ৫০

৬০ টাকার নিচে সবজি নেই, আলু ৫০

 নিজস্ব প্রতিবেদক
  ২০২০-১০-১৩: ১২:২৪ পিএম

মাঠে এখন পরিবর্তনের হাওয়া। কৃষকরা বুনছে নতুন সবজি, কিন্তু বাজারে আসার মত সবজি একেবারেই হাতে গোনা। ৬০ থেকে ৭০ টাকার নিচে কোনো সবজি নেই, এই সুযোগে ৩০ টাকার আলু এখন ৫০ টাকায় ঠেকেছে। বিক্রেতারা বলছেন, শীতের সবজি বাজারে আসার আগ পর্যন্ত এমনই চড়া থাকবে দাম।

চট্টগ্রাম নগরের সবচেয়ে বড় ভাসমান বাজার বসে নগরের জামালখান থেকে বৌদ্ধ মন্দির মোড় পর্যন্ত রাস্তার দুই ধারে। প্রতিদিন ভোর থেকে সকাল ১০ টা পর্যন্ত এখানে কয়েকশ বিক্রেতা ভ্যান গাড়িতে করে সবজি, মাছ এমনকি মশলাপাতিও বিক্রি করতে আনেন। কোতোয়ালীর বিস্তির্ণ এলাকার মানুষ সকাল সকাল এখান থেকে বাজার করে নিয়ে যায়। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সূ-ব্যবস্থাপনায় সকাল দশটার পর, এই সড়কে কিছুক্ষণ আগেও যে একটি বাজার ছিলো তা বোঝা যায় না।

মঙ্গলবার সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উচ্চমূল্যেই বিক্রি হচ্ছে সব ধরনের সবজি। ৫০ থেকে ৫৫ টাকায় মিলছে আলু। মিষ্টিকুমড়া ৪০ টাকা, লাউ ৫০ টাকা, চিচিংঙ্গা ৭০ টাকা, কচুলতি ৬০ টাকা। কাঁচামরিচ এখনো বাড়তি দামেই বিক্রি হচ্ছে, প্রতিকেজি ২০০ থেকে ২৫০ টাকায়। টমেটো ১০০ টাকা, পটল ৬০ টাকা, ধুন্দল বিক্রি হচ্ছে ৭০ টাকায়।

সবজির খুচরা বিক্রেতা জসিম উদ্দিন বলেন, বেগুন বিক্রি করছেন ৭০ টাকা কেজি। ঢেঁড়স বিক্রি করছেন ৬০ টাকায়। করলা প্রতিকেজি বিক্রি করছেন ৮০ টাকা যা গত সপ্তাহে বিক্রি হয়েছিল ৬৫ টাকা।  

তিনি বলেন, কাঁচা সবজি পচনশীল। তাই একদিন বিক্রি না হলে লোকসান গুনতে হয়। তাছাড়া বর্ষার শেষে এখন বাজারে সবজির আমদানি কম। একারণে গত সপ্তাহের চেয়ে আজ একটু দাম বেশি।

আলু বিক্রেতা মহরম আলী বলেন, সবজির দাম বেশি তাই মানুষ আলুর প্রতি ঝুকেঁছে; চাহিদা বেশি। কিন্তু আড়তে আলু নাই। নতুন আলু আসতে আরো দুইমাস সময় লাগবে, তাই আলুর দাম বেশি।

খুচরা বিক্রেতা মাহবুব বলেন, রিয়াজউদ্দিন বাজারের আড়ৎ থেকে পাইকারি মূল্যে পণ্য কিনে খুচরা দোকানিরা সবজিতে কেজি প্রতি ১০-১৫ টাকা লাভ করে। এখানে সবজির দাম বৃদ্ধির পেছনে তাঁদের কোনো হাত নেই। তাছাড়া বাজারে মালের সংকট রয়েছে।


নিউজটি শেয়ার করুন

সাবস্ক্রাইব ইউটিউব চ্যানেল