আরব বিশ্বে ফরাসি পণ্য বয়কটের ডাক

আরব বিশ্বে ফরাসি পণ্য বয়কটের ডাক

 আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  ২০২০-১০-২৭: ০৯:৩৭ এএম

ইসলাম ধর্ম নিয়ে প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর মন্তব্যের পর ফরাসি পণ্য বর্জনের ডাক দিয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের কয়েকটি দেশের ব্যবসায়ী সংগঠনগুলো।

মাসের শুরুতেই ইসলামকে ‘সংকটাপন্ন ধর্ম’ বলে মন্তব্য করে সমালোচিত হন প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। সম্প্রতি হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর কার্টুন প্রদর্শনকে সমর্থন দেয়ার পাশাপাশি ইসলামি মৌলবাদীদের কাছে নতিস্বীকার করবে না ফ্রান্স বলে মন্তব্য করেন তিনি।

তারপর থেকেই ফুঁসে উঠেছে আরব বিশ্ব। কাতার, কুয়েত, সৌদি আরব, তুরস্কে হ্যাশ ট্যাগ (#বয়কট ফ্রেঞ্চ প্রডাক্টস) ব্যবহার করছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীরা। দেশগুলোর বিভিন্ন সুপার মার্কেট থেকে ফরাসি পণ্য ইতোমধ্যেই সরিয়ে ফেলা হয়েছে। এছাড়া লিবিয়া, সুদানে বিভিন্ন জায়গায় ছোট ছোট বিক্ষোভও হয়েছে। 

আন্দোলনকারীরা ফেসবুক পোস্টে ফ্রান্সের বিভিন্ন কোম্পানির একটি তালিকাও প্রকাশ করছেন। যেখানে ফ্রান্সের মালিকানাধীনা কোম্পানিগুলোর লোগো ও নাম ব্যবহার করা হয়েছে।

তুরস্ক ও সৌদি আরবে হ্যাশটেগে সবার শীর্ষে অবস্থান করছে ফ্রেঞ্চ পন্য বয়কটের বিষয়টি। দেশগুলোর সামাজিক মাধ্যমে মুসলমানদের আহ্ববান করা হচ্ছে ফ্রেঞ্চ পণ্য বয়কট করতে। 

কুয়েতে ১০ এর অধিক ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান এবং সদস্যরা ফরাসি পণ্য বয়কটের সিদ্ধান্ত নেয়। সকল সুপার মার্কেট থেকে ফরাসি পণ্য সরিয়েও ফেলেছে প্রতিষ্ঠানগুলো। কুয়েতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইসলাম বিদ্বেষী কোনো কর্মকান্ড মেনে নেয়া হবেনা বলেও ঘোষণা দেন। 

কাতারে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে ফরাসি পণ্য বয়কট ও বিকল্প পণ্য বাজারজাত করার কথা বলেছে। সাথে যোগ দিয়েছে দেশটির প্রধান বিশ্ববিদ্যালয় কাতার ইউনিভার্সিটিও। কিছুদিন পরেই অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ফ্রেঞ্চ সংস্কৃতি সপ্তাহ বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। 

এদিকে বাংলাদেশেও বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে ফ্রেঞ্চ পণ্য বয়কটের আহ্ববান জানাচ্ছে ব্যবহারকারীরা। 

উল্লেখ্য, মতপ্রকাশের স্বাধীনতার ক্লাসে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর কার্টুন প্রদর্শনের কারণে ১৬ অক্টোবর ফ্রান্সের এক শিক্ষককে হত্যা করে এক কিশোর। হামলার কিছুক্ষণের মধ্যেই সেই কিশোর আবদুল্লাহ আনজরভকে (১৮) গুলি করে হত্যা করে পুলিশ। ঘটনার পর প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ ইসলামিক বিচ্ছিন্নতাবাদের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিলে দেশজুড়ে ধরপাকড় শুরু হয়।


নিউজটি শেয়ার করুন

সাবস্ক্রাইব ইউটিউব চ্যানেল